বিনোদন

ফসল রক্ষায় জমিতে বলিউড তারকা সানি লিওন এর পোস্টার

জমিতে বলিউড তারকা সানি লিওন এর পোস্টার

ফসলের বাম্পার ফলনে মানুষের কুনজর, খারাপ নজর বা বদ নজর যেন না লাগে তাই কাকতাড়ুয়ার বদলে জমিতে বলিউড তারকা সানি লিওন এর পোস্টার লাগিয়েছেন কুসংস্কারাচ্ছন্ন এক ভারতীয় কৃষক…আসলে কি তিনি সফল হয়েছেন?

নজর কাঁড়তে না নজর এড়াতে এই কাজ?

“বদ বা খারাপ নজর” কে লোকজন একটি অভিশাপ বলে বিশ্বাস করে; কেউ হিংসার দৃষ্টিতে কোন ভাল কিছুর দিকে তাকালে, হিংসার বশবর্তী হয়ে এর খারাপ কিছু প্রত্যাশা করতে পারে। এতে করে ঐ ভাল জিনিসের খারাপ পরিণতি হতে পারে। দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের বেশিরভাগ সংস্কৃতিতে দুশ্চিন্তাগ্রস্থ ব্যক্তিদের মাঝে এমন বিশ্বাস প্রচলিত রয়েছে।


সাধারণ, বদ নজর এড়াতে এবং কাক-পক্ষি তাড়াতে কৃষকরা ফসলি জমিতে বৃহদাকার, কিম্ভূতকিমাকার, ভীতিকর পুতুল ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু হিন্দুস্তান টাইমস এর এক প্রতিবেদন নুযায়ী কৃষক এ চ্যাঞ্চু রেড্ডি নতুন এক গ্রাম্য উদ্ভাবনী ধারনা নিয়ে এসেছেন, তিনি কানাডিয়ান-ভারতীয় পর্ণ তারকা থেকে বলিউড অভিনেত্রী হওয়া সানি লিওনের উজ্জ্বল লাল রঙের বিকিনি পড়া হাস্যোজ্জ্বল ছবি সম্বলিত এক পোস্টার তার ফসল জমির সামনে লাগিয়েছেন। পোস্টারটিতে তেলেগু ভাষায় একটি বাক্য লেখা আছে যার অর্থ, “এই যে তুমি আমার সাফল্যকে হিংসা করো না বা এর জন্য কেঁদো না।”

এমনটা করার কারণ জানতে চাইলে, ৪৫ বছর বয়সী অন্ধ্রপ্রদেশের এই কৃষক চেঞ্চু রেড্ডি বলেন, বেশ কয়েক বছরের হতাশার পর, তিনি চাইছিলেন না বদ নজর বা কুনজরের কারণে তার ফুলকপি আর বাধাকপি আর নষ্ট হোক।

“এই বছর, ১০ একর জমিতে আমি ভাল ফলন পেয়েছি। গ্রামবাসী ও পথচারীরা এতে অহেতুক নজর দেয়। তাদের খারাপ বা বদ নজর থেকে পরিত্রাণ পেতে, জমির সামনে একটি বড় পোস্টারে সানি লিওনের ছবি লাগানোর বুদ্ধির কথা ভাবলাম।”

— এ. চেঞ্চু রেড্ডি

কৌশলটা কাজ করছে কারণ এখন আর কেউ আমার ফসলের দিকে নজর দিচ্ছে না, সকলের নজর এখন সানি লিওনের পোস্টারের দিকে। তার বিশ্বাস তার ফসল আগের সব সময়কার চেয়ে আরও বেশি সুস্থ ও সতেজ দেখাচ্ছে।

সৃজনশীলতা নাকি অশ্লীলতা?

অনলাইনে এই সম্পর্কে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে, অনেকে এই কৃষকের সৃজনশীলতার তারিফ করেছেন আবার অনেকে বলেছেন এটা অশ্লীলতা।


এ. চেঞ্চু রেড্ডির মতে তার ফসল যেন খারাপ নজর না লাগে সেই ব্যবস্থা করা জরুরী ছিল। সেখানে যদি সানি লিওনের ছবি ব্যবহার হয়ে থাকে, তাহলে আমাদের সম্মানিত বোধ করা উচিত যে বলিউডের আরও অনেক সুদর্শন ব্যক্তিদের মধ্যে তাকেই পছন্দ করেছেন। আমরা দেখতে চাই কৃষকরা অন্য অভিনেতা অভিনেত্রীদের ছবি ব্যবহার করলে এই ব্যাপারটা কেমন কাজ করে। যেমন যদি কেউ হৃতিক রওশনের হাস্যোজ্জ্বল এবং  জামা ছাড়া কোন ছবি কেউ ব্যবহার করে?

লেখাটি যদি উপভোগ করে থাকেন, যদি আপনাদের ভাল লাগে থাকে। তাহলে ফেসবুকসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করবেন।

Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top